মিয়ানমারের ফাঁদে পা দেবে না বাংলাদেশ

সমকাল ড. দেলোয়ার হোসেন প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:১১

দৃশ্যত কয়েক সপ্তাহ ধরে মিয়ানমার সামরিক বাহিনী বাংলাদেশের সীমান্ত লঙ্ঘন করে বেপরোয়া ও আগ্রাসী আচরণ করছে। চতুর্থবারের মতো মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে জবাবদিহির জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ডেকে পাঠিয়েছে। এর মাঝে ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্র সচিব রিয়ার অ্যাডমিরাল (অব.) মো. খুরশেদ আলম গত সোমবার ঢাকায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর (আসিয়ান) মিশনপ্রধানদের ব্রিফ করেন এবং বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সীমান্তবর্তী এলাকার বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করেন। তবে ব্রিফিংয়ে মিয়ানমারের কোনো কূটনীতিক উপস্থিত ছিলেন না।


ওদিকে ইয়াঙ্গুনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মঞ্জুরুল করিম খান চৌধুরীর সঙ্গে বৈঠকে সীমান্তে গোলাবর্ষণের সাম্প্রতিক ঘটনার জন্য আরাকান আর্মি ও আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন গ্রুপকে (আরসা) দায়ী করেছে মিয়ানমার। তবে ভুলে গেলে চলবে না- ওপাশ থেকে যারাই সীমান্ত লঙ্ঘন করুক, তা আন্তর্জাতিক আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। যদিও মিয়ানমার দাবি করছে- আরাকান আর্মির সঙ্গে জান্তা সরকারের লড়াইয়ের ফলে এই সীমান্ত লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে; এটাকে বাংলাদেশের প্রতি উস্কানি হিসেবে দেখার যথেষ্ট অবকাশ রয়েছে। কীভাবে ও কতভাবে এই উস্কানি দেওয়া হচ্ছে, তাও খতিয়ে দেখতে হবে এখনই।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

সংবাদ সূত্র

News

The Largest News Aggregator
in Bengali Language

Email: [email protected]

Follow us