কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব | প্রিয় স্টোর

প্রার্থী নেই বিএনপি, বাম দলের

মানবজমিন প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০

আগামী ৭ই অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে ভোটের লড়াইয়ে অংশ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপিসহ বেশ কিছু বিরোধী রাজনৈতিক দল। অতীতের ভোটগুলোর তিক্ত অভিজ্ঞতা ও নির্বাচন কমিশনের ওপর আস্থা না থাকায় ভোট বর্জনের এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছে বিএনপি, সিপিবি, বাসদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। এদিকে গতকাল প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিন ধার্য ছিল। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান ভিপি মিজান বলেন, আমরা এই উপনির্বাচনে অংশ নিচ্ছি না। অংশ নেব কীভাবে? দিনের ভোট রাতে হয়ে যায়, ভোটারদের নির্বিঘ্নে ভোটকেন্দ্রে যেতে দেয়া হয় না। এই কারণেই আমরা নির্বাচনে যাচ্ছি না।বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জলি পাল বলেন, বর্তমান সরকারের অধীনে এই উপনির্বাচনে আমরা বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি কোনো প্রার্থী দেবো না। পূর্বে নির্বাচনে অংশ নিয়ে আমাদের তিক্ত অভিজ্ঞতা রয়েছে, বাংলাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন হয় না। কারচুপি হয়। নির্বাচনের কোনো পরিবেশ থাকে না। আমরা এই নির্বাচনে কাউকে সমর্থনও দিচ্ছি না। আমাদের কোনো নেতাকর্মী যদি ভোট দিতে যায়, দিতে পারে, কিন্তু তাদের মনে রাখতে হবে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি এই নির্বাচনটি বর্জন করেছে। বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) মৌলভীবাজার জেলা শাখার সদস্য ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার সমন্বয়কারী এডভোকেট আবুল হাসান বলেন, এখন যে নির্বাচন কমিশনার ও তাদের যে প্রহসনের নির্বাচন, গ্রহণযোগ্যহীন নির্বাচন সেটায় আমরা অংশ নেবো না। মৌলভীবাজার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও এই নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন বলেন, আমি দুই বছর যাবৎ এখানে বিভিন্ন নির্বাচন পরিচালনা করেছি। সবগুলোই সুষ্ঠু হয়েছে। এই উপনির্বাচনে আমরা একটি সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দেবো। এখানে কোনো অনিয়ম হবে না।এদিকে উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে মোট চারজন প্রার্থীর মধ্যে সকলেই বাছাইয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন। কারও নমিনেশন বাতিল হয়নি। চার প্রার্থী হলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগ কোষাধ্যক্ষ ও শ্রীমঙ্গল সদর ইউনিয়ন পরিষদের সদ্য পদত্যাগকারী চেয়ারম্যান ভানুলাল রায়, উপজেলা পরিষদের সদ্য পদত্যাগকারী ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা শ্রমিক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক চা শ্রমিক সন্তান প্রেমসাগর হাজরা (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী), উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি শ্রীমঙ্গল ইউনিয়নের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মো. আফজল হক (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) স্বতন্ত্র প্রার্থী এবং জাতীয় পার্টি প্রার্থী (এরশাদ) মনোনীত প্রার্থী মিজানুর রব। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৯শে সেপ্টেম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ২০শে সেপ্টেম্বর উপনির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহী প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ করা হবে।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

আরও