কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

কথাশিল্পী বুলবুল চৌধুরীর বাঁচার লড়াই

মানবজমিন প্রকাশিত: ২০ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০

একুশে পদকপ্রাপ্ত কথাশিল্পী বুলবুল চৌধুরী লড়ছেন দুরারোগ্য ক্যান্সারে। জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে জীবন ঘনিষ্ঠ এই লেখক। টুকা কাহিনী, পরমানুষ, মাছের রাত, এই ঘরে লক্ষ্মী থাকে- এমন অসংখ্য গ্রন্থের কথাকার বুলবুল চৌধুরী। একুশে পদকের আগেও তিনি পেয়েছেন বাংলা একাডেমিসহ অসংখ্য পদক ও সম্মাননা। যিনি অন্যের জীবনের বাস্তব রূপকার আজ তিনিই লড়ছেন নিয়তির সঙ্গে। একেবারে সাদাসিধা জীবনে অভ্যস্ত এই মানুষটি নিজের জীবন নিয়ে লিখেছেন ‘অতলের কথকতা’। সেই ‘অতলের কথকতা’র মানুষটি কি আবারো হাঁটবেন স্বাভাবিক জীবনের ছন্দে? পরিবার ও নিকট বন্ধু-স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, প্রায় ছয় মাসের বেশি সময় ধরে তার ঘন ঘন জ্বর, শরীরের ওজন কমে যাওয়ায় তিনি ডাক্তারের শরণাপন্ন হন। গত  ফেব্রুয়ারির কথা। হঠাৎ শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে জরুরি পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ধরা পড়ে জটিল ব্যাধিতে আক্রান্ত বুলবুল  চৌধুরী। শরীরে বাসা বেঁধেছে ক্যান্সার। আর তা ছড়িয়ে পড়েছে শ্বাসযন্ত্রে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব  মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অনকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সারওয়ার আলমের তত্ত্বাবধানে বর্তমানে বুলবুল চৌধুরীর চিকিৎসা চলছে। আজীবন অতি সাধারণ জীবনযাপনে অভ্যস্ত এই জীবনবাদী কথাসাহিত্যিকের সম্পদ বলতে যৎসামান্য যা-ই ছিল, তা নিয়েই চিকিৎসা করছেন। একের পর এক রোগ নির্ণয় চেষ্টা আর চিকিৎসার বিপুল পরিমাণ ব্যয় নির্বাহ করতে করতে ইতিমধ্যেই নিঃশেষ হয়ে গেছে তার পরিবার। ইতিমধ্যে চিকিৎসার জন্য প্রায় ত্রিশ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। হাতে আর তেমন কিছুই নেই। জীবনের সকল সম্পদ নিঃশেষ করে কথাশিল্পী আজ বুলবুল চৌধুরী বর্তমানে কঠিন সঙ্কটের মুখোমুখি। ফুসফুসের ক্যান্সার এখন রক্ত ও মস্তিষ্কে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে। চলছে কেমো। জটিল এই ব্যাধির চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন অর্থের। ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণে এখন যেখানে প্রতি মুহূর্তে চিকিৎসা চালু রাখা প্রয়োজন, সেখানে প্রয়োজনীয় অর্থের অভাবে তীব্র এক অনিশ্চয়তার মুখোমুখি গুণী এই কথাশিল্পী। লেখকের পরিবারের পক্ষ থেকে চাওয়া হয়েছে আর্থিক সহযোগিতা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কল্যাণে অনেক সৃজনশীল মানুষ তাদের দুঃসময়ে দিশা পেয়েছেন নতুন জীবনের। বর্তমান অবস্থায় বুলবুল চৌধুরীর পরিবারের পাশে দাঁড়াবে সরকার- এমনটাই প্রত্যাশা করছেন লেখক বুলবুল চৌধুরীসহ সুধীজন। এই দুঃসময় কাটিয়ে তিনি আবারো লেখালেখির ভুবনে সরব ভূমিকায় সচল থাকবেন- এমনটাই আশা করছেন লেখক সমাজ।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

আরও