কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মামুনুলকে নেওয়া হয়েছে তেজগাঁও থানায়

প্রথম আলো তেজগাঁও থানা প্রকাশিত: ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১৪:৫৫

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে গ্রেপ্তারের পর তেজগাঁও থানায় নেওয়া হয়েছে।


আজ রোববার মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসা থেকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগ তাঁকে গ্রেপ্তার করে। ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল  প্রথম আলোকে বলেন, মামুনুল হকের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে। সেই মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।  


গ্রেপ্তারের পর মামুনুল হককে প্রথমে পুলিশের তেজগাঁও বিভাগে নেওয়া হয়েছিল। সেখানে কিছু সময় রাখার পর তেজগাঁও থানায় নেওয়া হয়। এর আগে তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) হারুন অর রশিদ তাঁর কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ২০২০ সালে মোহাম্মাদপুরে একটি ভাঙচুরের মামলায় মামুনুলকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে আরও কয়েকটি মামলা আছে মতিঝিল, পল্টন, নারায়ণগঞ্জে। 


হেফাজত নেতা মামুনুল হক গ্রেপ্তার


হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগ। মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।


রোববার (১৮ এপ্রিল) বেলা একটার দিকে তাঁকে মাদ্রাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম।


পুলিশের তেজগাঁও জোনের উপকমিশনার হারুন অর রশিদের নেতৃত্বে একটি দল তাঁকে গ্রেপ্তার করেন।


যেভাবে গ্রেফতার হলেন মামুনুল হক


আইনশৃঙ্খলা বাহনীর কর্মকর্তারা জানান, তারা অপেক্ষায় ছিলেন মামুনুল হকের মাদ্রাসা থেকে বের হওয়ার। সার্বক্ষণিক গোয়েন্দা নজরদারির মধ্যেই রাখা হয়েছিল তাকে। এর মধ্যে হেফাজতের মধ্যম সারির একাধিক নেতাকে গ্রেফতার করা হয়। যাতে মামুনুল হক গ্রেফতার হলে কেউ মাঠে নেমে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি করতে না পারে।


সংশ্লিষ্টরা জানান, মামুনুল হকের মাদ্রাসা থেকে বের হওয়ার অপেক্ষা করলেও রবিবার (১৮ এপ্রিল) তাকে মাদ্রাসা থেকেই গ্রেফতার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা গোয়েন্দা তথ্যের মাধ্যমে মাদ্রাসায় কতজন শিক্ষার্থী অবস্থান করছেন সেই তথ্য সংগ্রহ করেন। পরে প্রযুক্তির সহায়তায় মামুনুল হকের সর্বশেষ অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হন। এরপরই পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের পুলিশ কর্মকর্তাসহ গোয়েন্দা পুলিশের মতিঝিল জোনাল টিম তাকে গ্রেফতারে অভিযান চালান।


নারীসহ মামুনুলকে ঘেরাও: সহিংসতার মামলায় কাউন্সিলর গ্রেপ্তার


নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে রিসোর্টে হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হককে নারীসহ ঘেরাওয়ের ঘটনার পর হেফাজতের সহিংসতা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় করা মামলায় এক কাউন্সিলরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল শনিবার রাতে সোনারগাঁ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর ফারুক আহমেদ ওরফে তপনকে গ্রেপ্তার করা হয়।


এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে সাবেক কাউন্সিলর গরিবে নেওয়াজকে গ্রেপ্তার করা হয়।


মামুনুল হকের পক্ষে পোস্ট দেয়ায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২ নেতাকে শোকজ


ফরিদপুরের স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুই নেতা ফেসবুকে হেফাজতে ইসলামের মামুনুল হকের পক্ষে পোস্ট দেয়ায় তাদের শোকজ করা হয়েছে। এ নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগে চলছে সমালোচনার ঝড়।


নিরাপত্তা চেয়ে মামুনুল হকের দাবি করা দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলের জিডি


হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের দাবি করা দ্বিতীয় স্ত্রী জান্নাত আরা জান্নাত ওরফে ঝর্ণার ছেলে (১৭) নিজের ও মায়ের নিরাপত্তা চেয়ে পল্টন থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে।


শনিবার (১০ এপ্রিল) এই জিডি করা হয় বলে জানিয়েছেন মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার সৈয়দ নুরুল ইসলাম।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

আরও