কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

মুখপাত্র হিসেবে আমুকে চায় ১৪ দলের শরিকরা

ডেইলি বাংলাদেশ প্রকাশিত: ০৬ জুলাই ২০২০, ১৩:০৩

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম মারা যাওয়ার পর থেকে রাজনৈতিক অঙ্গনে চলছে জোর আলোচনা, কে হচ্ছেন ১৪ দলের মুখপাত্র ও সমন্বয়ক? দায়িত্বশীল এ পদটিতে জোট মুখপাত্র ক্ষমতাসীন দল থেকে আসছেন তা মোটামুটি নির্ধারিত। তবে সেই নতুন মুখ নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে রয়েছে নানা সমীকরণ। তবে মুখপাত্র হিসেবে কে আসবেন সেটি নির্ভর করছে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর। কারণ জোট নেত্রী হিসেবে তিনিই এ সিদ্ধান্ত নেবেন।

এ বিষয়ে  আওয়ামী লীগের শরীক জোট ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের কাছে জানতে চাইলে তিনি ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্রের দায়িত্ব কাকে দেবে তার সিদ্ধান্ত নেবেন জোট নেত্রী আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তবে ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র হিসেবে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমুর ব্যাপারে আমরা সম্মতি জানিয়েছি। এই বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে আমরা শরিক দলগুলো একমত হয়ে সম্মতির বিষয়টি জানিয়েছি। কবে ১৪ দলের মুখপাত্রের নাম ঘোষণা করা হবে সঠিক বলতে পারছি না। তবে ঈদের আগে হওয়ার সম্ভবনা আছে।

আওয়ামী লীগের এক দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা বলেন, ১৪ দলের বিষয়টি আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা জানেন। আর আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন। এরপর তা প্রকাশ করা হবে। তবে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু ১৪ দলের মুখপাত্র হবেন। ঈদের আগে তা ঘোষণা করা হতে পারে। তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান ও এমপি সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, আওয়ামী লীগের অন্যতম প্রবীণ নেতা আমির হোসেন আমু। মোহাম্মদ নাসিম যখন বেঁচেছিলেন তখন আমির হোসেন আমু ১৪ দলের অনেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে এসেছিলেন। তাছাড়া ১৪ দলের সব নেতাকর্মীদের সঙ্গে তার সুসম্পর্ক আছে একজন সিনিয়র নেতা হিসেবে। ১৪ দলের মুখপাত্রও হিসেবে তাকে আমরা সম্মতি দিয়েছি। এই বিষয় নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে কথা হয়েছে। সেখানেও আমরা আমির হোসেন আমুকে ১৪ দলের মুখপাত্র হিসেবে সম্মতি জানিয়েছি। তার পক্ষেই জোটের শরিকদের সমন্বয় করা সম্ভব। কবে ঘোষণা করা হবে ঠিক বলতে পারবো না। এটা শুধু জোট নেত্রী শেখ হাসিনাই বলতে পারবেন। তবে ঈদের আগে হতে পারে ১৪ দলের মুখপাত্রের নাম ঘোষণা। 

সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, বড় দল হিসেবে জোটের সমন্বয় ও মুখপাত্রের দায়িত্ব আওয়ামী লীগই পালন করে। এই দায়িত্বশীল পদটি আওয়ামী লীগের একজন সিনিয়র প্রবীণ নেতা আসবে বলে আমরা আশা করছি। আমির হোসেন আমুর কথা শুনেছি এবং তাকেই আমরা সর্মথন করেছি। তাছাড়া জোট নেত্রী শেখ হাসিনা এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন। জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের সভাপতি সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু সঙ্গে এই বিষয় নিয়ে অনেকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তা সম্ভব হয়নি।

১৪ দলীয় জোট সূত্রে জানা গেছে, ১৪ দলের মুখপাত্র হিসেবে দায়িত্ব নিতে আগ্রহী আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন হেভিওয়েট নেতা। এছাড়া অন্য দলের শীর্ষ নেতারা এই পদে দায়িত্ব নিতে আগ্রহী। তবে এই পদ নিয়ে এখন পর্যন্ত কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। আওয়ামী লীগের শরীকজোটে যেসব দল, বাম প্রগতিশীল, আওয়ামী লীগ, জাসদ ও ন্যাপ মিলে ১৪ দল গঠিত হয়। বর্তমানে এ জোটের প্রধান দলগুলো হলো- ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), সাম্যবাদী দল, গণতন্ত্রী পার্টি, কমিউনিস্ট কেন্দ্র, গণআজাদী লীগ, গণতান্ত্রিক মজদুর পার্টি, বাসদ (একাংশ), জাতীয় পার্টি (জেপি) ও তরিকত ফেডারেশন ইত্যাদি।  তৎকালীন বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের জোট হিসেবে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে ২৩ দফার ভিত্তিতে ২০০৪ সালে গঠন করা হয় ১৪ দল। সে সময় জোটের সমন্বয়ক করা হয় আব্দুল জলিলকে। এরপর ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে ১৪ দলের সমন্বয়কের দায়িত্ব পান দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী। সাজেদা চৌধুরী অসুস্থ হয়ে পড়লে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিমকে ১৪ দলের মুখপাত্র করা হয়। সেই থেকে আমৃত্যু পর্যন্ত তিনি দায়িত্ব পালন করে গেছেন।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

আরও