কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

অবশেষে ইউপি সদস্যের জমিতে দাফন হলো সেই নারীর

ঢাকা টাইমস প্রকাশিত: ৩০ মে ২০২০, ০৮:৩৭

প্রাণসংহারি ভাইরাস করোনার উপসর্গ নিয়ে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের মারা যান রানী বেগম। ২৩ বছর বয়সী ওই নারীকে দাফন করার জন্য শ্বশুরবাড়ি ও বাবার বাড়িতে কবর খুঁড়তে গেলে বাধা দেয় গ্রামবাসী। কিন্তু গ্রামবাসীর বাধায় দুই গ্রামের কোথাও দাফন করতে পারছিলেন না মৃতের স্বজনরা। অবশেষে বিষয়টি কানে যায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার। তার হস্তক্ষেপে এক ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যের জমিতে দাফন করা হয় গৃহবধূ রানীকে। ঘটনাটি ঘটেছে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায়।

ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রাকিবুল আলম বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে জ্বর ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয় রানী বেগম। তার মা খদেজা বেগম, বোন ইতি আক্তার, ছোট ভাই রাসেল তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। উপসর্গ থাকায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে হাসপাতালের প্রি-আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করার পরামর্শ দেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত একটার দিকে ওই গৃহবধূ মারা যান।

রানী বেগমের মৃত্যুর পর স্বাস্থ্য বিভাগ ও উপজেলা প্রশাসন থেকে তার স্বামী আকবর আলীসহ অন্যান্য স্বজনদের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও মরদেহ নিতে সাড়া মেলেনি। আকচা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার বর্মন বলেন, মারা যাওয়া নারীর সঙ্গে ৬ বছর পূর্বে একই উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের আকবর আলীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তারা জগন্নাথপুর ইউনিয়নের বাদুরপাড়া কলোনিতে ভাড়া বাসায় বসবাস করছিলেন।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

আরও