ছবি সংগৃহীত

ঢাকায় হয়ে গেলো উইকিপিডিয়া এডিট-আ-থন

মহান মুক্তিযুদ্ধের ৭ বীরশ্রেষ্ঠের নিবন্ধগুলোর মানোন্নয়নের পাশাপাশি প্রখ্যাত ব্যক্তি, বাংলাদেশের ঐতিহ্যের নানা বিষয় ভিত্তিক প্রতিবেদন নিয়ে কাজ করেন সক্রিয় উইকিপিডিয়া সম্পাদকেরা।

এম. রেজাউল করিম
প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৩:৪১ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১৬:৩২
প্রকাশিত: ২৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৩:৪১ আপডেট: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১৬:৩২


ছবি সংগৃহীত

 

ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) সঠিক নিবন্ধ তৈরি ও তথ্য সমৃদ্ধ করতে ঢাকায় হয়ে গেলো উইকিপিডিয়ার কারিগরি সম্পাদনা বিষয়ক দিনব্যাপী এডিট-আ-থন। উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের উদ্যোগে শনিবার বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের সহায়তায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। 

এই আয়োজনের মাধ্যমে মহান মুক্তিযুদ্ধের ৭ বীরশ্রেষ্ঠের নিবন্ধগুলোর  মানোন্নয়নের পাশাপাশি  প্রখ্যাত ব্যক্তি, বাংলাদেশের ঐতিহ্যের নানা বিষয় ভিত্তিক প্রতিবেদন নিয়ে কাজ করেন সক্রিয় উইকিপিডিয়া সম্পাদকেরা। 

এতে দেশের বিভিন্ন জেলার প্রায় ৩০ জন সক্রিয় উইকিপিডিয়া সম্পাদক অংশ নেন। নিবন্ধের মানোন্নয়নের পাশাপাশি নানা ধরনের উন্মুক্ত ছবির ভাণ্ডারও উইকিমিডিয়া কমন্সে যুক্ত করা হয়। 

এ বিষয়ে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক ফয়জুল লতিফ চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর ইতিহাস ও ঐতিহ্য সংশ্লিষ্ট নানা কর্মকাণ্ডে জড়িত রয়েছে। বাংলা উইকিপিডিয়ার এডিট-আ-থন-এ পরোক্ষভাবে হলেও অংশ নিয়ে জাতীয় জাদুঘর একটি মহৎ দায়িত্ব পালন করেছে। 

ভবিষ্যতেও বাংলা উইকিপিডিয়ার  প্রসারে ও উন্নয়নে যে কোনো জাতীয় জাদুঘর সহযোগিতা করবে বলে জানান তিনি। 

দিনব্যাপী এ আয়োজনে অংশ নেন উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের সভাপতি আলী হায়দার খান (তন্ময়), কোষাধ্যক্ষ তানভির মোর্শেদ, নির্বাহী সদস্য শাবাব মুস্তাফা, মাসুম আল হাসান (রকি), নির্বাহী সদস্য ও বাংলা উইকিপিডিয়ার প্রশাসক নুরুন্নবী চৌধুরী (হাছিব), উইকিপিডিয়া সম্পাদক মঈনুল ইসলাম, আফিফা আফরিন, ইব্রাহিম হোসেন মিরাজ, আর কে হান্নান, প্রত্যয় ঘোষসহ আরও অনেকে।

উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক নাহিদ সুলতান বলেন, বাংলা 

উইকিপিডিয়ায় বর্তমানে যেসব নিবন্ধ আছে সেগুলোকে আরও তথ্য সমৃদ্ধ ও মানোন্নয়ন করতে আমাদের সক্রিয় এবং অভিজ্ঞ কর্মীদের অংশগ্রহণে এ এডিট-আ-থন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভবিষ্যতেও তা অব্যাহত থাকবে। 

বর্তমানে বাংলা উইকিপিডিয়ায় নিবন্ধের সংখ্যা ৪৬ হাজারের বেশি। এছাড়া নিয়মিত নতুন যুক্ত করার পাশাপাশি নতুন প্রকাশিত নিবন্ধগুলোকেও আরও  মানোন্নয়নের কাজ চলছে। আগ্রহীরাও এতে যোগ দিতে পারবেন বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা। 

সম্পাদনা: এম আলম/

 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...