ছবি সংগৃহীত

অনুমোদন পেল উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ

বাংলাদেশে উইকিমিডিয়ার আনুষ্ঠানিক অনুমোদন দিয়েছে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন। এখন থেকে ‘উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ’ নামে সাংগঠনিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করবে।সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

techadmin
লেখক
প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর ২০১১, ০৫:০৪ আপডেট: ১৪ এপ্রিল ২০১৮, ২৩:১৩
প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর ২০১১, ০৫:০৪ আপডেট: ১৪ এপ্রিল ২০১৮, ২৩:১৩


ছবি সংগৃহীত
বাংলাদেশে উইকিমিডিয়ার আনুষ্ঠানিক অনুমোদন দিয়েছে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন। এখন থেকে ‘উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ’ নামে সাংগঠনিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করবে।সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। আনুষ্ঠানিক অনুমোদন পাওয়ার ফলে বাংলাদেশে অনলাইন বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়াসহ উইকিমিডিয়া পরিচালিত অন্যান্য প্রকল্পের প্রচার ও প্রসার বাড়াতে উইকিপিডিয়ার বাংলাদেশি স্বেচ্ছাসেবীরা (উইকিপিডিয়ান) উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ নামের স্বাধীন ও অবাণিজ্যিক সংগঠনের মাধ্যমে কাজ করবে। বাংলা উইকিপিডিয়ায় ইতিমধ্যে ২০ হাজারেরও বেশি নিবন্ধ যোগ হয়েছে, যার পুরোটাই হয়েছে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে। উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের অনুমোদন বিষয়ে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান বলেন, ‘এই অনুমোদন পাওয়ায় বাংলাদেশে উইকিপিডিয়ার কার্যক্রম আরও বেশি সম্প্রসারিত হবে।এখন নতুনভাবে বাংলা উইকিপিডিয়া সমৃদ্ধকরণে কাজ করা যাবে।’ উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের বাংলাদেশ শাখা হিসেবে কাজ করবে উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ। এ ছাড়া এই ফাউন্ডেশন অনলাইনে মুক্ত বিষয়বস্তুর মানোন্নয়নের পাশাপাশি সেমিনার, কর্মশালা ইত্যাদিরও আয়োজন করবে। সেই সঙ্গে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের প্রকল্পগুলোর প্রসারে সাহায্য করবে। পাশাপাশি উইকিমিডিয়া প্রকল্পগুলোর পরিচালনা ও উন্নয়নের জন্য নৈতিক ও অর্থনৈতিক অংশীদারি খোঁজা, আলোচনা, অন্য সংস্থাগুলোকে তাদের নিজেদের সুবিধার্থে উইকিমিডিয়ার বিষয়বস্তুগুলো ব্যবহারে সাহায্য করা, স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠান আয়োজন এবং বিভিন্ন উদ্যোগ নেওয়া, দেশে মুক্ত বিষয়বস্তু (ফ্রি কনটেন্ট) ও উইকি সংস্কৃতির (উইকি কালচার) প্রচার করার কাজ করবে উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ। বাংলা উইকিপিডিয়ার প্রশাসক ও উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের স্টুয়ার্ড তানভীর রহমান প্রথম আলোকে জানান, ‘প্রায় দুই বছর ধরে একটা চ্যাপ্টার তৈরির চেষ্টা চলছিল। শেষ পর্যন্ত আমরা সফল হয়েছি।’ —নুরুন্নবী চৌধুরী, প্রথম আলো

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...